মানিকগঞ্জে স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ ল’ ডিবেটিং সোসাইটির বাল্য বিবাহ রোধে আইনি সচেতনতা বিষয়ক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ ল’ ডিবেটিং সোসাইটির উদ্যোগে আইনি সচেতনতা বিষয়ক ‘বাল্য বিবাহঃ সমস্যা এবং প্রতিকার’ বিষয়ক শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আলোচনা সভার উদ্দেশ্য হচ্ছে বিভিন্ন স্কুল এবং কলেজ পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন আইনি বিষয়ে সচেতনতা প্রদান করা। সেই সুবাদে গত ১৭ নভেম্বর রোজ  রবিবার স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ ল’ ডিবেটিং সোসাইটির ১৫ জন সদস্য মানিকগঞ্জ জেলার সাটুরিয়া উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রাম কাটিগ্রামের ‘কাটিগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়’ এর শিক্ষার্থীদের সাথে বাল্য বিবাহ নিরোধে শিক্ষার্থীদের করণীয় এবং সেই সাথে বাল্য বিবাহ নিরোধে বিভিন্ন আইনি সহায়তা নিয়ে আলোচনা করে। উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ ল ডিবেটিং সোসাইটির মডারেটর সহকারী অধ্যাপক নাজিয়া রহমান, কাটিগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, ডিবেটিং সোসাইটির সিনিয়র সদস্য প্রণব সাহা, সভাপতি নাজমুন নাহার, সেক্রেটারি তানিয়া উম্মেহানি এবং সাধারণ সদস্যবৃন্দ।

উক্ত অনুষ্ঠান শুরু করেন সোসাইটির সভাপতি এবং পরবর্তীতে সোসাইটির সাধারণ সদস্য শিফাত শুভ গঠনমূলক বক্তব্যের মাধ্যমে অনুষ্ঠান এগিয়ে নিয়ে চলেন এবং মডারেটর মেডামের সমাপনী বক্তব্যের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্ত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে বাল্য বিবাহ রোধে যেকোন সমাধানের জন্য মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি, সেক্রেটারি, লিগ্যাল এইড অফিস এবং এডভোকেটদের মোবাইল নম্বর দেয়া হয়। উক্ত অনুষ্ঠান চলার সময় কাটিগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে উৎসাহ উদ্দীপনা ছিল চোখে পড়ার মত। বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী মাসুূদ রানা বলেন,’ আমার অনেক বান্ধবীদের বিয়ে হয়ে গেছে, আমরা কিছু করতে পারি নাই, এখন থেকে আমরাও আপনাদের দেয়া মোবাইল নম্বরে ফোন দিয়ে বাল্য বিবাহ বন্ধ করব।’ কাটিগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বলেন, ‘এ ধরনের সচেতনতা মূলক অনুষ্ঠান আমার ছাত্রছাত্রীদের বাল্য বিবাহ বন্ধ করতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে।’ ল’ ডিবেটিং সোসাইটির মডারেটর নাজিয়া রহমান বলেন, ‘সমাজের যেকোন প্রতিবন্ধকতা দূর করার জন্য আমাদের সংগঠন এরকম সচেতনতা মূলক অনুষ্ঠান ভবিষ্যতেও অব্যাহত রাখবে।’

স্টেট ইউনিভার্সিটি অব ল ডিবেটিং সোসাইটি একটি বির্তক সংগঠন হলেও বিভিন্ন সময় তারা সামাজিক সচেতনতা মূলক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে থাকে। এছাড়াও সোসাইটির সদস্যগণ দেশের জাতীয় পর্যায়ের বির্তক প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণ করে থাকে।