স্টেট ইউনিভার্সিটি অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণ

স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ (এসইউবি) ‘ইতিহাসের মহামানবেরা (Great Personalities of History) শীর্ষক বছরব্যাপী অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতার প্রথম ও দ্বিতীয় পর্বের পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান আয়োজন করে এর ৭৭ সাতমসজিদ রোডস্থ ধানমন্ডির মেইন ক্যাম্পাস এ। সারাদেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ ও স্নাতক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় ১৫ হাজার শিক্ষার্থী এ দু’পর্বের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ-এর উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল কবির। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন এসইউবির ডীন অধ্যাপক ডা: নাওজিয়া ইয়াসমিন ও ক্যারিয়ার ডেভেলপমেন্ট সেন্টার (সিডিসি)-এর পরিচালক আবু তাহের খান। অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এসইউবির রেজিস্ট্রার জনাব বাহাউদ্দিন মো: ইসা। অনলাইন প্রতিযোগিতার প্রথম ও দ্বিতীয় পর্বের দুই শীর্ষ বিজয়ী জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আরিয়ান ভুইয়া ও বীর শ্রেষ্ঠ নুর মোহাম্মদ পাবলিক কলেজের শিক্ষার্থী স্বাগতম সাহা।

এসএউবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল কবির তাঁর প্রধান অতিথির ভাষণে বলেন, স্টেট ইউনিভার্সিটি শিক্ষার্থীদের মেধা ও মননের বিকাশ সাধনের লক্ষ্যে শ্রেণিকক্ষ বহির্ভূত নানা নান্দনিক বিষয় নিয়ে সারাবছর ধরে বিভিন্ন ধরনের সেমিনার, কর্মশালা, কুইজ ইত্যাদির আয়োজন করে থাকে। তিনি বিজয়ীদের অভিনন্দন জানিয়ে আগামীদিনে এ ধরনের কার্যক্রমকে আরো জোরদার করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, এসইউবি তার শিক্ষা কার্যক্রমকে বিশ্বমানের করে তোলার ব্যাপারে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

অধ্যাপক ডা: নাওজিয়া ইয়াসমিন কুইজ বিজয়ী শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, আমি নিশ্চিত এই মেধাবী শীক্ষার্থীরা বড় হয়ে শুধু বাবা-মার মুখই উজ্জ্বল করবে না, দেশের জন্য বড় মাপের অবদান রাখতে সক্ষম হবে। রাষ্ট্র ও সমাজের উচিৎ এদের পথচলা ও বিকাশের পথকে যতোটা সম্ভব মসৃন করে তোলা।

আবু তাহের খান বলেন, এসইউবি শিক্ষার্থীদেরকে জ্ঞানমুখী ও অধ্যয়ন অনুরাগী করে তোলার ব্যাপারে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এ অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন সে প্রচেষ্টারই অংশ। ভবিষ্যতে এ ধরনের আয়োজন এসইউবি অব্যাহত রাখবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকারী তাসবিন মাহবুব বলেন, প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পেরে তিনি খুবই আনন্দিত। আর বিজয়ীদের মধ্যে প্রথম স্থান অর্জন করাতো অবশ্যই আরো বেশি আনন্দের। তিনি এসইউবি কর্তৃক দেশভিত্তিক এ প্রতিযোগিতা আয়োজনের প্রশংসা করে আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে, এসইউবি আগামীদিনেও এ ধরনের প্রতিযোগিতা আয়োজন করলে তাতে আরো বর্ধিত সংখ্যক প্রতিযোগী অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে।

অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতার প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় বিজয়ীর হাতে যথাক্রমে ১২ হাজার টাকা, ৮ হাজার টাকা ও ৫ হাজার টাকা নগদ পুরষ্কার এবং বিভিন্ন স্যুভেনির তুলে দেন এসিউবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল কবির। একই সাথে অন্য দশ বিজয়ীকে মুক্তিযুদ্ধের উপর লেখা বিভিন্ন বই ও স্যুভেনির পুরষ্কার হিসেবে প্রদান করা হয়।